ঢাকা,
মেনু |||

অপুর বাদ পড়া সেই ছবিতে মাহি

বিনোদন প্রতিবেদক

গত ১৬ আগস্ট রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ‘আশীর্বাদ’ ছবির প্রধান চরিত্র সুবর্ণার ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস। কিন্তু মাত্র একদিন পরেই নায়িকার সেই আশীর্বাদ কাল হয়ে ফিরে আসে। অপেশাদার আচরণের অভিযোগে বাদ পড়েন অপু।

 

 

ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে এই তথ্য জানান সিনেমাটির প্রযোজক ও কাহিনিকার জেনিফার ফেরদৌস। অপুকে বাদ দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার প্রযোজনা সংস্থা নতুন একজন নায়িকা চূড়ান্ত করে ফেলেছে বলেও তিনি জানান। তবে নতুন নায়িকা এবং অন্যান্য শিল্পীদের নাম সিনেমার শুটিং শুরুর আগে প্রকাশ করবেন বলে জেনিফার উল্লেখ করেন।

 

 

কিন্তু তার আগেই সেই কাঙ্ক্ষিত নামটি প্রকাশ করে দিলেন ‘আশীর্বাদ’-এর নতুন নায়িকা নিজেই। তিনি হলেন ঢালিউডের আরেক জনপ্রিয় নায়িকা ‘অগ্নিকন্যা’ মাহিয়া মাহি। তিনিই এখন ‘আশীর্বাদ’-এর সুবর্ণা। ছবিতে মাহির বিপরীতে নায়ক থাকবেন রোশান। আগামী মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে সিনেমাটির শুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

 

 

মুক্তিযুদ্ধের আগের উত্তাল রাজনীতি এবং মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিতব্য ‘আশীর্বাদ’ সিনেমাটি পরিচালনা করবেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নির্মাতা মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। এই ছবির নায়িকা হতে পেরে বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মাহিয়া মাহি। এখানে তার সুবর্ণা চরিত্রটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রীর। তাকে ঘিরেই ছবির কাহিনি।

 

 

যে কারণে সিনেমা থেকে বাদ পড়েছেন অপু বিশ্বাস

‘আশীর্বাদ’-এর প্রযোজক জেনিফার ফেরদৌসের ফেসবুক লাইভে দেয়া বয়ান অনুযায়ী, ১৬ আগস্ট সিনেমার চুক্তি অনুষ্ঠানে নিজস্ব একজন ফটোগ্রাফার নিয়ে যান অপু বিশ্বাস। তাকে দিয়ে চুক্তি সংক্রান্ত নানা মুহূর্তের ছবি তোলান এবং ভিডিও করান। সে সময় অপুকে বলা হয়, প্রযোজনা সংস্থার অনুমতি ছাড়া এসব ছবি ও ভিডিও যেন সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা না হয়।

 

 

কিন্তু সেই নির্দেশ মানেননি অপু বিশ্বাস। চুক্তির দিনেই তিনি ছবি এবং ভিডিও তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে পোস্ট করেন। বিষয়টা মেনে নিতে পারেননি প্রযোজক জেনিফার। তিনি অপুকে ফোন করে এর ব্যাখ্যা চাইলে তাদের মধ্যে একচোট কথা কাটাকাটি হয়। পরে পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের সঙ্গে কথা বলে অপুকে সিনেমা থেকে বাদ দিয়ে দেন প্রযোজক জেনিফার।

 

 

যদিও অপু বিশ্বাস প্রথমে গণমাধ্যমের কাছে দাবি করেছিলেন, করোনায় যেহেতু এখনো প্রতিদিন মানুষ মরছে। তাই এই মুহূর্তে তার মা মেয়েকে কাজের জন্য বাইরে বের হতে দিতে চাচ্ছেন না। বিষয়টি নিয়ে তিনি নাকি খুব চিন্তিত। তাই মায়ের কথা রাখতে এবং সন্তান জয়ের সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে অপু সিনেমাটি ছেড়ে দেন।


admin

প্রধান ‍উপদেষ্টা: মো: ‍আবু তালেব মিয়া
প্রকাশক: মো: ‍ইনাম মাহমুদ
সম্পাদক : রিয়াজ পাটওয়ারী
যুগ্ম সম্পাদক: খান আব্বাস
প্রধান সম্পাদক: মো: কামরুল ইসলাম
সহ সম্পাদক: মো: মেহেদী হাসান
নির্বাহী সম্পাদক: শাহাদাত তালুকদার
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: এম এইচ প্রিন্স
Desing & Developed BY Engineer BD Network