ঢাকা,
মেনু |||

রোগীর লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে শেবাচিমে রেফার্ড করলো ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল

 

‌নিজস্ব প্র‌তি‌বেদক:

বরিশাল ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে এমন অভিযোগ উঠেছে। প্রায় এক লাখ টাকা বিল নিয়ে রোগী‌কে শেবাচিমে রেফার্ড করলো ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

অভিযোগ সুত্রে জানাযায় গত ১৫মার্চ কিডনিতে পাথর জনিত রোগনিয়ে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয় স্বরূপ কাঠির সাথী বেগম।ঐ দিন রাতেই তার শরীরে অস্র পচার করাহয়।দুই দিন পরে ডিউটি ডাক্তার অপারেশন স্থলে দেয়া টিউব খুলে ফেলে।পরবর্তীতে রোগী অসুস্থ হয়ে পরলে তাৎক্ষণিক আরো একটি অপারেশন করা হয়। অপারেশন’র পরে চিকিৎসক ডাঃমনিরুল আহসান জানান রোগীর এপেন্ডিস অপারেশন করা হয়েছে। পরবর্তীতে আবারো অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে রোগীর টিউব স্থাপন করা হয়েছে। দিন দিন রোগীর অবস্থার অবনতি হলে শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দুজন(সার্জন) সিনিয়র চিকিৎসক এনে রোগীর অবস্থার পর্যবেক্ষণ করাহয়।এসময় সিনিয়র চিকিৎসক রোগীর শরীরে অস্র পচারের সিদ্ধান্ত নেন। রহস্য জনক ভাবে রোগীর শরীরে অস্ত্র পচার না করে ডাঃমনিরুল আহসান রোগীকে শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করেন।১৫ মার্চ হতে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে অবস্থান ও চিকিৎসা নেওয়ার জন্য রোগীর স্বজনদের গুনতে হয়েছে ভুতুরে বিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের ভুল চিকিৎসার দায়তো নিলেনই না,বরং রোগীকে পুজি করে মোটাঅংকের টাকা আদায় করলেন।সাথী বেগমের স্বামী জানান ভুল চিকিৎসা দিয়ে আমার স্ত্রীকে প্রায় মেরে ফেলছে। এ‌তোটাকা পরিশোধ করতে আমাকে হিমশিম খেতে হয়েছে। এ ব্যাপারে ডাঃমনিরুল আহসান’র সাথে যোগাযোগের চেস্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। এ ব্যাপারে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল সুপারিনটেনডেন্ট ডাঃ ইসতিয়াক হোসেন বলেন রোগীটির অবস্থা বারবার পর্যবেক্ষণ করেছি। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করাহয়েছে।রোগীর আর্থিক অবস্থা বিবেচনা করে যতটুকু সম্ভব টাকা কমানো হয়েছে।


রিয়াজ পাটওয়ারী

প্রধান ‍উপদেষ্টা: মো: ‍আবু তালেব মিয়া
প্রকাশক: মো: ‍ইনাম মাহমুদ
সম্পাদক : রিয়াজ পাটওয়ারী
যুগ্ম সম্পাদক: খান আব্বাস
প্রধান সম্পাদক: মো: কামরুল ইসলাম
সহ সম্পাদক: শরিফুল আলম সোহেল
নির্বাহী সম্পাদক: শাহাদাত তালুকদার
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: এম এইচ প্রিন্স
Desing & Developed BY Engineer BD Network